,

শিরোনাম :
লক্ষ্মীপুর ব্যবসায়ীর উপর হামলার অভিযোগ অনুমতিহীন কোরবানি হাটে অবৈধভাবে আদায় হচ্ছে লাখ-লাখ টাকা! লক্ষ্মীপুরে গরু-মহিষ চোরদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় হত্যার উদ্দেশ্যে এসে হামলা, লুটপাট লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ লক্ষ্মীপুরে দোকান ঘর বিক্রির নামে প্রতারনা লক্ষ্মীপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হামলায় আহত-৪ লক্ষ্মীপুর টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরামের আহ্বায়ক মনির, সদস্য সচিব আনিস কবির চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে অধ্যক্ষ মামুন জনপ্রিয়তার শীর্ষে রায়পুরে যৌতুকের দাবীতে স্ত্রীর উপর নির্যাতন বালু বাহী ড্রাম ট্রাকের চাপায় মটরসাইকেল আরোহী আহত, চালক আটক

অনুমতিহীন কোরবানি হাটে অবৈধভাবে আদায় হচ্ছে লাখ-লাখ টাকা!

শনিবার (৮ জুন) দুপুরে দক্ষিণ চর বংশী ইউনিয়নের মোল্লার হাট বাজারে গেলে চোখে পড়ে ৩টি পয়েন্টে গরু বাজার, ১টি ছাগল বাজার ও ১টি মহিষের বাজার। ক্রেতা-বিক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের দেখা যায়নি। এনিয়ে মানুষের মাঝে নিরাপত্তা নিয়ে চরম আতংক বিরাজ করছে।

খবর নিয়ে জানা গেছে, মোল্লার (হাট) বাজার সাপ্তাহিক দুইদিন বসে। শনিবার ও মঙ্গলবার। এ বাজারে সঠিক নাম হচ্ছে বাহার আলী মোল্লার হাট।  কোরবানি ঈদকে কেন্দ্র করে জেলার সবচেয়ে বড় পশুর হাট মিলে এ বাজারে। সরকারিভাবে এ বাজারে কোরবানি পশুর হাটের অনুমতি নেই। তবুও প্রভাবশালী একটি চক্র অবৈধভাবে পশুর হাট বসিয়ে লাখ লাখ টাকা টোল আদায় করছে। এতে চুপচাপ রয়েছে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন।

এ হাটে জেলার বাহিরে নোয়াখালী, ভোলা, বরিশাল ও শরীয়তপুরসহ বিভিন্ন জেলার খামারি ও বেপারীরা গরু নিয়ে আসে। এ হাট থেকে ১-২ কিলোমিটার দূরত্ব মেঘনা নদী। এজন্য নৌপথে গরু আনা নেওয়া খুব সহজ হয় খামারিদের।

২০১৪ সালের পর থেকে সরকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত। জনস্রোতে রয়েছে সরকার বছরে প্রায় ২ থেকে ৩ কোটি টাকার রাজস্ব হারাচ্ছে এ বাজার থেকে। আর আঙ্গুল ফুলেফেঁপে উঠছে ক্ষমতাসীন দলের একটি গ্রুপ।

এ বাজার পুরো নিয়ন্ত্রণ করেন রশিদ মোল্লা তার ছেলে মনির মোল্লা, দিদার মোল্লা, হারুন মোল্লাসহ তাদের মোল্লা পরিবারের একটি গোষ্ঠী।

৮নং দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মনির হোসেন মোল্লা বলেন, বাহার আলী ওয়াক্‌ফ এস্টেটের নামে এ বাজার। পশুর হাট থেকে যে টোল আদায় করা হয়। সেই টাকা মোল্লার হাট জামে মসজিদের উন্নয়ন কাজে ব্যয় করা হয়। দৃশ্যমান টোল আদায় হয় না। সামান্য কিছু টা উঠে।

জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহান বলেন, যেসব স্থানে পশুর হাটের অনুমতি নেই। কেউ যদি অবৈধভাবে হাট বসায়, তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পুলিশ সুপার তারেক বিন রশিদ জানান, অবৈধ পশুর হাটের বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য থাকলে সঙ্গ-সঙ্গেই জেলা পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা নিবে।

উল্লেখ্য: আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে লক্ষ্মীপুরে অর্ধশতাধিক স্থানে বসবে কোরবানির পশুর হাট বিষয়টি জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহান ৫ জুন তার কার্যালয়ে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা প্রস্তুতি বিষয়ক সভায় এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

     এই বিভাগের আরও সংবাদ